রিমির বাড়িতে শিক্ষামন্ত্রী

main_logo-Samokal
আত্মহননে প্ররোচনাকারীকে কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে
সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি
নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলায় বখাটের উত্ত্যক্তে আত্মহননকারী কলেজছাত্রী ফারহানা ইসলাম রিমির বাড়িতে গিয়ে পরিবারের লোকজনদের সান্ত্বনা ও সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। গতকাল বিকেলে মন্ত্রী উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের চর গোয়ালদি গ্রামে রিমির বাড়িতে যান। তিনি রিমির বাবা রফিকুল ইসলাম ও বড় বোন ফারজানা, ছোট বোন রিতা, মিতাসহ আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে কথা বলেন।এ সময় মন্ত্রীকে কাছে পেয়ে রিমির পরিবারের লোকজন কান্নায় ভেঙে পড়েন। মন্ত্রী বলেন, যে কোনো মূল্যে রিমির আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারীকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে। মন্ত্রী বখাটে শামীমকে গ্রেফতারে পুলিশকে কঠোর নির্দেশ দেন। এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় এমপি আবদুল্লাহ আল কায়সার, শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক প্রফেসর রুমানুর রশিদ, নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মনোজ কান্তি বড়াল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাজ্জাদ হোসেন, ইউএনও সাগরিকা নাসরিনসহ অন্যরা। পরে মন্ত্রী সেখান থেকে রিমির শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সোনারগাঁ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে যান। তিনি সেখানে উপস্থিত শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও স্থানীয়দের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন। এ সময় মন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, রিমির ঘটনাটি কোনো আত্মহত্যা নয়, এটি একটি খুন। আমি শিক্ষা পরিবারের একজন সদস্য হিসেবে বলতে চাই, রিমির হত্যা প্ররোচনাকারীকে কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে। আমরা শিগগির উত্ত্যক্তকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইন করতে যাচ্ছি। এদিকে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী রোববার সকালে দুই দফা বখাটে যুবক শামীমের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। তবে হামলার আগেই শামীম ও তার পরিবারের লোকজন গা-ঢাকা দিয়েছে।

তথ্যসূত্র: সমকাল, ১৯ নভেম্বর ২০১২

Advertisements