বান্দরবানে কলেজছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ

prothom-alo-logo
বান্দরবান প্রতিনিধি | তারিখ: ২৭-০১-২০১৩
বান্দরবান জেলার শহরতলিতে গতকাল শনিবার আদিবাসী এক কলেজছাত্রী শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিকেল চারটায় জেলা শহরে নারীর ওপর সহিংসতা বন্ধের দাবিতে আজ রোববারের ডাকা সড়ক অবরোধ কর্মসূচির সমর্থনে মিছিল ও সমাবেশ চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় এ প্রতিবেদন লেখার সময় ঘটনাটি নিয়ে সালিসি সভা বসার জন্য প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছিল বলে পৌরসভার কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান ও ইউপি সদস্য জগদীশ ত্রিপুরা জানিয়েছেন।কলেজছাত্রী ও পরিবারের লোকজন বলেছেন, কলেজ ছুটি শেষে ওই ছাত্রী সাইঙ্গ্যা ত্রিপুরাপাড়ার বাড়িতে ফিরছিলেন। বিকেল চারটার দিকে বান্দরবান-চিম্বুক সড়কের মিলনছড়ির কাছাকাছি এলাকায় পৌঁছালে বেসরকারি অবকাশযাপন কেন্দ্রের মো. সালমান নামের এক কর্মচারী তাঁকে জাপটে ধরেন। ওই ছাত্রী ধস্তাধস্তি করে নিজেকে কোনো রকমে ছাড়িয়ে নিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হন।


বান্দরবান পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান বলেছেন, সালিসি সভা বসার জন্য তাঁরা ছাত্রী, তাঁর বাবা এবং সালমানের বাবা মোহাম্মদ হারুনকে ডেকেছেন। সালমান পলাতক থাকায় সভা হয়নি। মোহাম্মদ হারুনকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাঁর ছেলেকে হাজির করার জন্য বলা হয়েছে।


মোহাম্মদ হারুন বলেছেন, তাঁর ছেলে সকালে রিসোর্টে কাজ করতে যাওয়ার পর বাসায় ফেরেননি। ছেলের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সত্য হলে ঘরে রাখবেন না বলে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

তথ্যসূত্র: প্রথমআলো, ২৭ জানুয়ারি ২০১৩

Advertisements