উত্ত্যক্তের শিকার ছাত্রীর স্কুলে যাওয়া বন্ধ!

prothom-alo-logo
নিজস্ব প্রতিবেদক, ভৈরব | তারিখ: ১৮-০২-২০১৩
কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে এক যুবকের উত্ত্যক্তের শিকার দশম শ্রেণীর এক ছাত্রী স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই ছাত্রীর পরিবারের অভিযোগ, গত বুধবার ওই যুবক মেয়েটির শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালান।
ওই ছাত্রী গতকাল রোববার কুলিয়ারচর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছে।পুলিশ ও ওই ছাত্রীর পরিবারের ভাষ্যমতে, কুলিয়ারচর পৌর এলাকার ওই ছাত্রীকে এক বছর আগে প্রেমের প্রস্তাব দেন নোয়াকান্দি মহল্লার সাগর মিয়া (২২)। মেয়েটি এতে রাজি না হওয়ায় ওই যুবক তাকে উত্ত্যক্ত করতে শুরু করেন। গত বুধবার সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে নোয়াকান্দি এলাকায় মেয়েটির পথ রোধ করেন সাগর। পরে তার শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালান। এ সময় এলাকাবাসীর কয়েকজন এগিয়ে এসে মেয়েটিকে রক্ষা করেন।


মেয়েটি বলে, সাগরের অশোভন আচরণের কারণে সে আতঙ্কিত। স্কুলে গেলে সে আবারও এমন পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে পারে—এ আশঙ্কায় তার পরিবার তাকে স্কুলে না পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
বক্তব্য জানতে যোগাযোগের চেষ্টা করেও সাগর মিয়াকে পাওয়া যায়নি। তাঁর ঘনিষ্ঠ এক বন্ধু বলেছেন, সাগর মেয়েটিকে বিয়ে করতে চান। মেয়েটি রাজি হচ্ছে না বলেই তিনি এ ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারেন।
কুলিয়ারচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুব্রত কুমার সাহা জানান, তদন্তে পুলিশ অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে। পরে অভিযোগটি মামলা হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে। সাগরকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

তথ্যসূত্র: প্রথমআলো, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৩

Advertisements