ইমামকে গণপিটুনি

prothom-alo-logo
শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ
সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি | তারিখ: ০৬-০৩-২০১৩
নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরে একটি মসজিদের ভেতরে এক ছেলেশিশুকে ওই মসজিদের ইমাম যৌন নির্যাতনের চেষ্টা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর এলাকাবাসী ওই ইমামকে গণপিটুনি দিয়েছে। গত সোমবার বিকেলে শহরের শহীদ আতিয়ার কলোনি জামে মসজিদে এ ঘটনা ঘটে।স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিকেলে ওই মসজিদের ইমাম মো. এনামুল হাসান একটি শিশুকে (৮) ফুসলিয়ে মসজিদে নিয়ে যান। শিশুটির মা অভিযোগ করেন, ঘটনার দিন বিকেল তিনটা থেকে তাঁর ছেলেকে পাওয়া যাচ্ছিল না। সন্ধ্যায় সে ঘরে ফিরে যৌন নির্যাতনের ঘটনাটি তাঁকে জানায়। সঙ্গে সঙ্গে তিনি ইমামকে ডেকে পাঠান এবং এলাকাবাসীর সামনে রাগারাগি করেন। এ সময় ইমাম প্রকাশ্যে তাঁর অপরাধের কথা স্বীকার করে ক্ষমা চান। একপর্যায়ে এলাকাবাসী ইমামের ওপর চড়াও হয়। এলাকাবাসী তাঁকে বেধড়ক মারধর করে। পরে পুলিশ এসে আহত ইমামকে উদ্ধার করে।


স্থানীয় বাসিন্দা রুহুল আমিন অভিযোগ করেন, এনামুল জামায়াত-শিবির চক্রের সঙ্গে জড়িত। তাঁকে প্রায়ই জামায়াতের মিছিলে দেখা গেছে। এলাকার শিশুদের মিছিলে যেতে নানাভাবে উৎসাহিত করে আসছিলেন তিনি।
যোগাযোগ করা হলে ইমাম এনামুল হাসান বলেন, তিনি শিশুটিকে দিয়ে কেবল শরীর মালিশ করিয়েছেন। যৌন নির্যাতনের অভিযোগ সত্য নয়।
গতকাল সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি। তবে ঘটনার তদন্ত চলছে।

তথ্যসূত্র: প্রথমআলো, ৬ মার্চ ২০১৩

Advertisements